মা-ইলিশ রক্ষায় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ

মা-ইলিশ রক্ষায় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা আজ বুধবার রাত ১২টায় শেষ হয়েছে। ২২দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে রাতেই উন্মুক্ত সাগর ও নদীতে নামতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলেরা।

জেলেরা জানান, তারা ২২ দিনের তারা মাছ শিকারে নামতে পারেননি। সংসারে অভাব-অনটন প্রকট আকার ধারণ করেছে। ইতিমধ্যেই জেলেরা বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট থেকে চড়া সুদে ঋণ কেউবা এনজিও, সমিতি, বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছেন। তারা ট্রলার, নৌকা, জাল মেরামত কাজ সম্পন্ন করে রাত থেকেই সাগরে নামতে তারা সকল আয়োজন সমাপ্ত করেছে।

নিষেধাজ্ঞার সময় অভিযান পরিচালনাকারী আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তেজানান, অভিযানের সময়সীমা কিছুদিন বৃদ্ধি থাকলে যেসকল মা-ইলিশ এখনো ডিম ছাড়তে পারেনি তার অধিকাংশই ডিম ছাড়তো। ৪০ ভাগ মা-ইলিশ ডিম ছাড়লে মিঠা পানির ইলিশের প্রাচুর্য বেড়ে যেত।

অভিযানে সদস্যরা জানান, মা-ইলিশ কিংবা জাটকা রক্ষার অভিযান প্রায়ই মাঝ নদীতে থমকে দাঁড়ায়। আধুনিক নৌ-যান ব্যবস্থা না থাকায় ট্রলার নিয়ে জেলেদের কাছে পৌছানোর পূর্বেই জেলেরা জাল ও ট্রলার নিয়ে তীরে উঠে যেতে সক্ষম হয়। তাদের মতে ভাষানচর, বাগরজা, লেঙ্গুটিয়া পয়েন্ট, দড়ির চর, খাজুরিয়া, মাসকাটা নদী, তেতুলিয়া, মেঘনা, কীর্তনখোলার বেলতলা, চরবাড়িয়া, চরমোনাই পয়েন্ট, দপদপিয়া কালিজিরা পয়েন্টে প্রচুর ইলিশ ডিম ছাড়তে আসে। এসব নদীতে সার্বক্ষণিক নজরদারি হলে ইলিশ উৎপাদন আরো বেড়ে যেত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *